অবলা নয় অবলা নয় নয় অস্ফুটবাক
যা কিছু বলার সব আজ বলা হয়ে যাক
যুগান্তরের মর্মব্যথা প্রতি কোটরে আছে
মুখ ফুটে বাক রূপ পেয়ে যায় সব গাছে
সব প্রয়োজনে মহাজন গাছ টেনে চলে
জীবন জীবিকা যতো তারই পথ ধরে চলে
তবু নিজ প্রয়োজনে বৃক্ষ নিধন হাসি মজা
আঘাতে আঘাতে অকারনে গাছ পায় সাজা l


বৃক্ষেরা আজ আওয়াজ তুলেছে স্বাধীনতার
আকারে প্রকারে প্রতিবাদী বিরোধ নীরবতার
দেহ ফুঁড়ে মুখের আকার যুগ যুগ ধরে আঁকে
যতো ক্ষোভ অভিমান ফুটে মুখের বাঁকে বাঁকে
সংবেদী মন শুনেছে সে স্বর আধার নিয়ে তা ধরে
গাছের ব্যথা প্রতি দুখকথা বলে তার মতো করে l