বিশ্বাসের মানচিত্রে আঁকি তোমার ছবি
শীতের দীর্ঘ সৌরভে যেমন ভাপ উঠে পিঠায় ধোঁয়ার আলোছায়ায় তখন তোমার হেঁটে চলা,কথা বলা সময় স্মৃতির পয়েন্টে পয়েন্টে দেয় ট্রাফিক সিগনাল


আজ বড় বেশি মনে পড়ে দীঘির জল দেখে সেদিনের সুখরঙা হাসি যে হাসির  কলকলানিতে ভরে উঠতো কলেজের আঙ্গিনা,বন্ধুদের মন আর করচতলাতে প্রেমিক যুগলের স্বাপ্নিক কথন


সখ্যতার রঙ মেলেছে ডানা ছাত্র সংসদের বারান্দায় যে সুরের তাল খেলা করেছে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত  হৃদয়ের অলিন্দে
ইশ! প্রেমের বাউরি বাতাস যদি লাগতো তোমার গায়,আমার মনে তাহলে বুঝি আজ এই মাঘের শীতেও ওম পেতো শরীর, পথচলার বাঁকে সময়কে দেখে নিতাম কলাভবনের ঐতিহাসিক সৌন্দর্যরূপ।