সে ছিল আমার পরম শত্রু
দিনের পর দিন পরস্পরকে অভিসম্পাত।
মুখ দেখাদেখি ছিল বন্ধ
করেছি পরস্পরের মৃত্যু কামনা
কিন্ত্ত সত্যিই যেদিন
তার মৃত্যু হল
থমকে গেছি।
বুঝে উঠতে পারিনি
আমার আনন্দ করা উচিৎ
না শোক।
সংস্কারে  পালন করেছি
যাবতীয় নিয়ম
নাকি আমি ভয় পেয়েছি
অজানা আশঙ্কায়।
সত্যিই কি কিছু থাকে মৃত্যুর পর?
সত্যিই কী থাকে পরলোক?
সত্যিই কী বেঁচে থাকে শত্রুতা?
নাকি মৃত্যু ভুলিয়ে দেয় যত শত্রুতা।
মুছিয়ে দেয় সব ক্ষত।
আমি তো কোনো মহাপুরুষ নই
যে শোক,ক্রোধ, অভিমান
জয় করব সহজেই।
তবুও কেন আমি আনন্দিত হইনা
উল্লাসে মাতিনা শত্রু নিধনে।
আসলে আমরা সবাই ভয় পাই।
যতটা না শত্রুকে
মৃত্যুকে আরও বেশি।