এই দেখো, একখানা কবিতাকে আনি আজ
ঝর্ণার জল থেকে। শব্দের উল্লাসে
জল মাখা ঘাসে ঘাসে আনন্দ খেলে যায়,
মানবিক প্রেম আর প্রিয়তির মমতায়।
মুঠো মুঠো সুখরাশি কিছু প্রেম, কিছু হাসি
দিনেরাতে মিশিয়েছি। তার সাথে বেদনার
জ্যোৎস্নার রঙ মেখে তুলে দেবো,
নিরিবিলি চেখে নেবো।
তারপর, বলে যাবো- ভালোবাসি, ভালোবাসি...
ভালোবাসি রূপ তার, ভালোবাসি তার হাসি
ওইখানে দেখি আজ কবিতার মাসিপিসি।
কবিতারা চিরদিন রূপকথা অমলিন,
এইবার এই নাও
ছন্দিত কবিতার অনন্ত রূপধারা।
লাল নীল সবুজের কবিতারা
হেসে যায়, ভেসে যায স্বপ্নের দোলা চায়।
অফুরান সুরে তাই ধীর লয়ে গেয়ে যাই,
পৃথিবীর দুঃখীরা একসাথে এসো আজ।
কবিতার কারুকাজ তুলে নেবো দুই হাতে
ক্রমাগত দিনেরাতে।
শ্রম আর মেধাখানি এসো সাথে নেবো টানি,
শব্দের ঝংকারে, ছন্দের টংকারে
কবিতারা হেঁটে যাক সাবলীল চেতনায়।
মানবিক কথাগুলো কবিতায় কবিতায়
ভেসে উঠুক, হেসে উঠুক
আমাদের আঙিনায়;
শতরূপে শতগুণে শতবার মুর্ছনায়।


২৭/১০/২০১৮
মিরপুর, ঢাকা।