বদ্যিমশাই আজ অতি ধূর্ত, লোক ঠকানোই কাজ,
ট্যকের মাল খসাতে যেন করেছেন সিদ্ধ হাত!


চালাকি তার অস্ত্র যেন, কমিশনেও মাথা খেলে,
জানেন কোন ওষুধে নেবেন টাকাটি কানমলে,


কথায় কথায় তুলনা করেন, এর হল ওর হল,
মাসে যদি লাখ দশ না হয়, তো আর কি হল?


মির্জাকে দেখ কামাছে, টেস্টের কমিশনে লাখ লাখ,
আর আমার বেলায় কামাতে গেলে, চক্ষু চরক গাছ?


২৫০ কোটি লক্ষ্য রেখেছি, সবে তো ৩০ হল,
তাড়াতাড়ি আরো তাড়াতাড়ি চায়, রুগিকে বেডে ফেলো।


একটুতেই ভয় খায়ানো , অজথা যত টেষ্ট,
তা না হলে উঠবে না যে এমাসের ইনভেস্ট।


এছাড়া কাটাকাটিতে লাখ টাকার ফিরিস্তি,
পারবে না ধরতে কেঊ, তাতেই তো মস্তি!


ডাক্তার না ডাকাত বোঝার নেই উপায়,
দরিদ্র রুগিতো সারা জীবনই নিরুপায়।


তবুও আছেন কিছু মানবিক ডাক্তার,প্রনাম তাদের পায়ে,
ক্ষমা ঘেন্যা করে দেবেন, এই সমাজ পচনের অবক্ষয়ে ।