বারোমাসে বাংলা
--
শিমুল বনে আগুন শেষে
উদাস ফাগুন যায় পালিয়ে কই!
মুকুল আসে আমের শাখে
চৈত্র মাসের গান শুনাতে ওই।
দহন কালে তপ্ত বেলায়
হঠাৎ কাঁপায় আকাশ জুড়ে মেঘে
বোশেখ মাসে মাতন ঝড়ের,
রোদের সাথে মেঘ খেলায়।
থামলে পরে ঝড়ের মাতন
জৈষ্ঠ্য হাসে মধুর রসের সাথে,
দুয়ার খোলে সব সাথীরা
আপন মনে মধুর রসে মাতে।
আষাঢ় মাসে নামলে দেয়া
কদম ফোটে  মনের ময়ূর নাচে,
শ্রাবণ ধারায় কেয়া বনে
পুষ্প মেলায় সবাই ডাকে কাছে।
ভাদ্র মাসের দিনটা বড়,
তালের রসের পিঠার বড় ধুম,
আশ্বিন মাসে ধানের ক্ষেতে
লুকিয়ে ফড়িং ভাঙে শীষের ঘুম।
কার্তিকে সব কেমন যেন
হারায় দিশা অমানিশার ঘোরে,
অঘ্রাণ মাসে ধানের গন্ধে
ডাকলে পাখি দিন শুরু যে ভোরে।
পৌষ মাসের পিঠার ডালি
সবার ঘরে জমায় সুখের বাসর
মাঘের শীত পালায় বেগে
গল্পকথায় জমে যখন আসর।
ফাগুন আসে আবার বনে
কোকিল ডাকে মধুর মধুর তানে,
বাংলা মায়ের মধুর হাসি
বারোমাসে হাসে মধুর গানে গানে।
--১৯/০২/২০২০