বিষন্ন বিকেলে
--
বিষন্ন বিকেলে
ফুটেছে কদম,
অশ্রুর বৃষ্টি ঝরে ঝরঝর।
নিশিথে বন্দী ঘুম অঘুমে
তরাসে সুন্দর তুমি উধাও।
দিকভ্রান্ত পথিক
ভুলে না দৃষ্টির বাণে,
তুমি রয়ে যাও খুব একাকী।
প্রচণ্ড বেগে ঝড় বয়ে গেলে
অসহায় দুমড়েমুচড়ে পড়ে থাকো,
একটি দুইটি এখানে ওখানে।
সমবেদনায় কেউ নেই পাশে,
সবাই ব্যস্ত এখন নিজস্ব পরিসরে।
পথ ভুলে একটি শেয়াল
কেঁদে কেঁদে ডাকে,
জানালায় উঁকি দেয় একজোড়া চোখ,
দৃষ্টির ওপাশে অজানা অন্ধকার।
আকাশের গর্জনে সন্ত্রস্ত মাটি,
দুর্বোধ্য সঙ্গীতে চেতনাহীন,
নিঃসাড় পড়ে থাকে জীবন্ত আত্মা।
কে গায় জীবনের গান
লঘু পদধ্বনি মিলায় কেবল
অস্ফুট আর্তনাদে বিরান ভূমি,
কদম্বফুল ছুঁয়ে যায়
তীব্র আঘাতে প্রমত্ত ঘূর্ণির ছোবল।
২২/০৫/২০