শবে কদর
****
পাপে গ্লাণিতে তাপিত ধরনী,
পেয়েছে মহিমান্বিত এক রজনী।
হাজার বছরের চেয়ে উত্তম রাত,
রমজানের বিশ রজনীর পর জাত।
প্রতি বিজোড় রাতে দিয়েছেন তিনি,
অসীম নিয়ামতের একমাত্র মালিক যিনি।
পাপী তাপী করজোড়ে চায় যদি ক্ষমা,
এই রাতসমূহে যত পারি আমল করি জমা।
দিয়েছেন তিনি পথের দিশারী দান,
অসীম অনুগ্রহ নিয়ে আসে যে রমজান।
কদরের রাতে হয়েছে নাজিল পবিত্র কোরআন,
মানব জাতির পথের দিশারী, রাসূলের(সাঃ) সম্মান।
আমার পাপ যত বড়,তাঁর ক্ষমা তার চেয়ে অধিক,
অসীম তাঁহার অনুগ্রহ,পরম ক্ষমায় উল্লসিত চৌদিক।
দাওগো আমাদের করে দাও ক্ষমা,কর হিদায়েত দান,
চলার পথে থাকে যেন আমাদের হিতাহিত জ্ঞান।
দান কর আরও নিয়ামত,পাপ রাশি কর দূর,
ঈমানের সাথে মরন দিওগো, রেখ ঈমানেই ভরপুর।
আমার পাপে আমিই ডুবিব, না পাই যদি তোমায়,
কাল কেয়ামতে কঠিন বিচারে কে ক্ষমিবে আমায়?
তুমিই আমার একমাত্র প্রভু, তুমিই মহান দাতা,
তুমিই সকল আলোর আধার,তুমিই শুধু ত্রাতা।
তোমার পবিত্রতা ঘোঘনা করে সকল সৃষ্টি যত,
চলার পথে সুমতি দিও, বেঁচে থাকি দিন যত।
তুমি মালিক ভাগ্যদাতা তুমিই শুধু জানো,
পাব কি পাবনা আগামী রমজান, ভাগ্যে কি আনো।
পাইনা যদি এমন রজনী জীবনে কখনও আর,
ক্ষমিও এ অধম পাপীরে,সকল পাপীরে কসম তোমার।
হাজার দরুদ আমার প্রিয় রাসূলের(সাঃ) এর তরে,
হাজারও প্রার্থনা তোমার কাছে ক্ষমা তুমি দিও করে।
পাপী এ বান্দার করুণ মোনাজাত করগো কবুল,
তোমার অসীম নিয়ামতে পূর্ণ হয়ে দূর করি সব ভুল।
--১২/৬/২০১৮