যদি আবার
-----
আবার যদি তুমি হতাম
হাসি দিয়ে ফুল ছড়াতাম।
আবার যদি তুমি হতাম,
নতুন সাজে মন সাজাতাম।
পোড়া মনে অনেক কালি,
জমা অনেক ধুলো বালি।
আয়না এনে সামনে দেখি,
জীবনটা যে পুরোই মেকি।
নিজের বিচার নিজেই করি,
দুঃখ হৃদে- পাষাণ পুরী।
অমন তোমার মিস্টি হাসি,
ভুবন মোহন ভালবাসি।
ভালবাসি আলোর ভুবন
কিন্তু তাতো হয়না শোভন।
তোমার হাসির মিস্টি মায়া,
দেখে ভুলাই আপন কায়া।
আবার যদি শিশু হতাম,
জীবনটাকে ফুল সাজাতাম।
বিধাতা তো নিজের হাতে,
বিধিলিপি দিলেন পাতে।
কেমন করে এড়িয়ে যাব?
মধুর জীবন কোথায় পাব?
কেমন করে স্বর্গ হতে,
আসো তুমি এই ধরাতে।
পাষাণ হৃদয় ছিন্ন করি,
আলোয় তুমি দাওগো ভরি।
তাই তোমায় দেখলে আমি,
দুঃখ ভুলে একটু থামি।
তোমার কঁচি ছোট্ট মুখে
হারাই যে গো স্বর্গসুখে।
যদি আবার শিশু হতাম,
জীবনটাকে ফুল সাজাতাম।
৭/৬/২০১৮