কি করে
-
কি করে মুগ্ধ কর তুমি?
কিভাবে পাল্টে ফেল ভোল?
কি করে বশ করে ফেল সবে?
পুষ্প তুমি ক্ষুদ্র বনের
হাতটা তোমার চাঁদের গায়ে,
সূর্য তোমার পায়ে লুটায়,
কি করে হে বশ কর তুমি!
মুখে তোমার সরস মধু
অন্তরে যে তীব্র হুল,
দংশ তুমি নির্বিচারে নিজের সুখে।
কত পথিক পথ ভুলেছে,
কত জনা কষ্ট চেপে
জল ফেলেছে চোখের,
তুমি বনের ছোট্র ফুল,
রূপের ঝলক প্রলুব্ধে-
হাজার ভ্রমর পায়ে লুটায়।
কেমন করে কাটো বাঁধন
বিবেক কি নাই তোমার!
যখন যে প্রজাপতি আসে বনে
দখল কর তুমি
রূপের জালে পুষ্প তুমি
কেমন করে হুল ফোটানো বৈধ কর?
সর্ব অঙ্গে বিষ তোমার,
তুমি লোভী,নিজেকে তুমি
অনায়াসে তোল নিলাম প্রয়োজনে।
এমনি করে যাবে কি দিন!
পুষ্পদল ঝরে যাবে দিনের শেষে
পড়ে রবে তোমার গাঁথা।
কেমন করে সর্বনেশে আগুন জ্বেলে
পুষ্পবনে আনো দহন,কর ধ্বংস,
অভিশাপে দগ্ধ হবে,
চিরদিন রয়না ফুলের সৌরভ।
শুষ্ক কুঞ্জ পায়ে দলে
প্রজাপতি পাখা মেলে
নতুন পুষ্পে সাজায় বাসর
এই কথাটি রেখ মনে।
তখন কি উপায় হবে,
যখন পুষ্প ঝরে যাবে
কাঁদবে বসে শূন্যবনে
খুব একেলা তুমি,
শুধু তোমার তুমি।
---১১/০৮/২০১৯