মর্মপীড়া
***
বিবিধ বিবিধ শরে বিদ্ধ আমি,
বিবিধ বিবিধ প্রশ্নে বিভক্তি আসন্ন
অস্তিত্ব বিপন্ন আমার নানাবিধ দ্বন্ধে।
তুমি কর ছল,তুমি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ যদিও
তবু নিয়তই কর পরিহাস।
নিছক চটুল হাস্যরসে মাতাও পৃথিবী,
সব কিছু নিছক খেলা মনে হয়।
যখন আমার হৃৎপিণ্ডে ক্ষত হয়
নিক্ষিপ্ত অযাচিত শরবাণে তোমার,
অসহায় আর্তনাদে আমি নিশ্চুপ তবু।
শুধু জমাট বাঁধা দীর্ঘশ্বাস যখন
অকস্মাৎ অজান্তে বের হয়ে আসে
ক্রুদ্ধ হও তুমি।
তোমার পরিহাস বৈধ,আমার আর্তনাদ অবৈধ,
তাহলে পাল্টে দাও বৈধতার সকল সঙ্গা?
একই কাতারে নেমে আসি,
আমি,তুমি সে- থাকবেনা বিভেদ কোনো।
যদি আমারই শিরেই তোমার আসন
তবে ধরে রাখো যতনে,
আমায় দাও কিছুটা পরিত্রাণ।
দমবদ্ধ হৃদয়ে কি করে ভালোবাসা ধরে রাখি বলো?
দাও কিছুটা খোলা হাওয়া,দাও কিছুটা সময়,
কণ্ঠে আনো মধুর কোনো রাগিনী।
পরিহাস আমায় প্রতিবাদী করে,
চটুল হাসিতে রক্তে আগুন জ্বলে
তোমার অকারণ উপহাস রক্তাক্ত করে আমায়।
দাও যদি প্রতিশ্রুতি কথা দিলাম
শুনব তোমার গান,অহোরাত্র জ্বালবো প্রদীপ
একসাথে হেঁটে যাবো যতদিন থাকে আয়ুষ্কাল।
--১১/১০/২০১৮