অবশেষ কালে
**
অনিকেত আমায় বিভ্রান্ত করেছিল
অনিমেষ দৃষ্টিতে, কুসুম কোমল যাত্রাপথে আমার।
অজস্র প্রশ্ন ছিল, কোথাও ছিল না সদুত্তর
অবসানে ছিল কেবলই পলাতক চঞ্চলতা।
অঝোরে ঝরেছে মিনতি কত,স্বাক্ষী ছিল কাল
অবলীলায় অবহেলায় উধাও হয়েছে মান।
অবেলায় বাস্তু-ভিটায় ঘুঘু চড়ে যায়,
অথই জলে ডুবসাঁতার, সূচালো তার স্পর্শ।
অনুভূতির বসবাস হিমাংকের নিচে,লক্ষ্য থাকে অবিচল
অতঃপর হিসেবের খাতায় ব্যপক গড়মিল।
অবেলায় গাঢ় সন্ধ্যা,দিকভ্রান্ত অস্থির আত্মা
অবশেষে শান্তি নামে,সম্মুখে অপেক্ষায় শান্ত সুপ্তিকাল।
---০৪/১০/২০১৯