অতঃপর
---
অকস্মাৎ নেমে এল স্তুব্ধতা
পৃথিবী জুড়ে।
মরুর বালুঝড়,পাহাড় কিংবা
ভূমি ধ্বস অথবা সুতীব্র একটি সাইক্লোন,
সব আজ শব্দ হারিয়েছে।
শব্দ হারিয়েছে ঊর্মিমালী,
জলতরংগ তার,
একটি কিংবা একরাশ ঝরাপাতা।
শিশিরের পতন,বজ্রের হুংকার
কিংবা ভোরের পাখি,
যাবতীয় পোষা প্রাণী
কিংবা বনের হিংস্র শ্বাপদ
সব আজ শব্দহীন।
যেখানে যা কিছু আছে
এমনকি চুলোয় ফুটন্ত ভাত
আজ নীরব নিথর।
সকল শব্দ আজ নির্বাসনে,
স্তব্ধতা নেমে এসেছে
পৃথিবী আজ শব্দহীন, জড়।
বালিকা তোমার অশ্রুজল,
বিধবা তোমার অশ্রজল,
স্বপ্ন কাতর বধূ তোমার অশ্রুজল,
মা তোমার নীরব অশ্রুজল।
সমস্ত পৃথিবী জুড়ে যেখানে যত
নিপীড়িত জনতার নীরব অশ্রুজল।
ক্রমাগত জড়ো হয়ে, গুচ্ছ হয়ে,
একত্রিত বিলীন, সচকিত হীন,
উচ্চকিত হয়ে হঠাৎ
তীব্র নিনাদে প্রলয় আঘাত।
অতঃপর শব্দরা নির্বাসনে
স্তব্ধতার দখলে আজ বিশ্ব-ব্রহ্মাণ্ড,
যাবতীয় শব্দ আজ মূকেদের দখলে।
দখল নিয়েছে নীরব অখণ্ড যুদ্ধে,
যেখানে একেকটি নীরব কান্না
জন্ম দিয়েছে শতকোটি শব্দ আর
অজস্র নীরব কঠিন প্রশ্নমালার।
তোমরা কোথায় যাবে?
কেমন অসহায় সব শক্তি প্রমত্ত
মুখোমুখি আজ শাণিত প্রশ্নবাণে
বিমুঢ় শব্দেরা নির্বাসনে।
অকস্মাৎ স্তব্ধতা দখল নিয়েছে
পৃথিবীর,আর যাবতীয় হিংস্রতার,
মুখোমুখি পৃথিবী নীরব কঠিন
সুনিশ্চিত সমরে,
ঐ জাগে ওরা।
----৭/৯/২০১৮