প্রাণের খুঁজে
---
সময়ের বাধ দাও ভেঙে দাও
বড় অসহ্য এই সময়,
শহর,নগর চরাচরে নেমে এসেছে
এক অসহ্য নীরবতা।
চিরচেনা মুখ আজ বড় অচেনা,
বড় অপ্রত্যাশিত প্রাপ্তি যা হল
দুর্বার অশ্বারোহী দিকভ্রান্ত আজ
কোন মোহজালে!
কোথাও নেই উদ্ভাসিত আলো,
মরীচিকা দেয় বিভ্রম উপহার
ঘোর অমানিশা আজ
দিকচক্রবালে খেলে মৃত্যু মৃত্যু খেলা।
অটল অচল সিহাংসন ঘিরে
স্তুতির নির্ভীক বসবাস,
ঘুণপোকা করে আস্তানা
অজান্তে সবার,কেউ দেখে না।
যেখানে ছিল স্বপ্নের বসবাস
সেখানে কিলবিল করে নরকের কীট,
ত্রস্তে উধাও হয় স্বাক্ষী যারা,
সত্য চাপা পড়ে আত্মগোপনে।
জঞ্জাল ঘিরেছে স্বপ্নের দেশে,
সুখ কেড়ে নেয় সুতীব্র আর্তনাদ,
কোন পাপে কখন কোথায় ছন্দপতন
কেউ জানে না কখন সমাপ্তি স্বপ্নের।
জীবন বড় সস্তা এখন,
টাকা দিয়ে কেনা যায় জীবন,
সত্যের অপলাপ হয়,নীতি যায় বিসর্জনে
ক্ষমতা চিরকাল সত্য গোপন করে।
চল চলে যাই দূরে কোথাও,
এ চরাচর ছেড়ে পালাতে চাই,
এখানে বিষাক্ত বাতাস, দমবন্ধ হয়ে আসে,
চল চলে যাই মুক্ত বাতাসের খুঁজে,প্রাণের খুঁজে।
যেখানে স্বপ্ন থাকে শঙ্কাহীন,
ভালবাসা ঘিরে রাখে মমতার আচ্ছাদনে
আমরা খু্ঁজে নিই মানুষের ভালবাসা,বিশ্বাস,
আমরা আবার ভালবাসি,আবার রচি নতুন অধ্যায়।
---০৯/১০/২০১৯