তার এর পর, তারপর
---
তারপর!
আমি ঘুরে এসেছি সমস্ত পৃথিবী,
পাহাড়,নদী সমুদ্র আকাশ
সমস্ত চরাচরে বেড়িয়ে এসেছি।
আমি মুঠোয় ভরে কিছুই আনি নি,
আমার হাত আগের মতই শূন্য,
শুধু চিন্তার জগতে কিছু অদ্ভূত আলোড়ন।
আমি ডানে বামে সবখানে দেখেছি একই প্রতিচ্ছবি,
তুলির পরশে জলরঙের ভিন্নতা ছাড়া সবকিছু এক,
কোথাও নেই ভিন্ন, অন্যরকম ছবি।
টালবাহানায় সর্বত্র পাশ কাটানো,
দখলের নির্মম উল্লাস।
কোথাও কিছু পূর্ণ নেই,
কোথাও নেই অগ্রসর পায়ের ছাপ কারো,
আদিম মানসিকতা এখনও প্রলয় নৃত্যে
টুঁটি চেপে ধরে, থাকে সুযোগের সন্ধানে।
কখনও উড়ে যেতে নেই পাখির ডানায় ভর করে,
কখনও মিশে যেতে নেই অজানায়,
সঙ্গী হতে নেই রহস্যময় আগন্তুকের।
তোমার বিশ্বাস নিয়ে খেলা করে,
তোমায় দেখাতে চায় মহাবিশ্ব
তুমি তার চোখে খুু্ঁজে পেতে চাও বিশ্ব তোমার
আর নির্দ্বিধায় বিশ্বাস তোমার ধুলোয় লুটায়।
তুমি স্থির হয়ে রও, তুমি হও নিশ্চল
তুমি দেখেছ পৃথিবীর সমস্তটা
অবাক চোখে।
একজোড়া চোখে পৃথিবী দোলে,
একজোড়া চোখ খুঁজে বিশ্বাস
একজোড়া চোখ খুঁজেছিল স্বার্থহীন ভালবাসা।
চোখের জলে সমুদ্র হয়?
যদি হতো!
একজোড়া চোখ জন্ম দিত বহু সমুদ্র আর মেঘের,
তবু ঠাঁই হত না তার।
পৃথিবী যেমন আছে থাকুক তেমন,
নিজের কাছেই আছে সমস্ত পৃথিবী,
এই নিজস্ব পৃথিবীর হিসেব সরল, নেই গড়মিল।
থাকুক সমস্ত পৃথিবী শূন্য,
থাকুক অনুভবে অদৃশ্য,
হদয়ে থাকুক নিজের পৃথিবী কেবল।
--১০/০৯/২০১৯