চরৈবেতির মন্ত্রে জাগে বিশ্ব চরাচর,
একাত্মতার তন্ত্রে বাঁধা নিপুণ মনোহর।           
এগোয় নদী সাগরপানে-
জোয়ার ভাঁটার অমোঘ টানে-
আদিগন্ত বিস্তারিত, অতল জলের পর,
তরঙ্গিনী উর্মিমালা চলে আপন ঘর।


রৌদ্রকরে আশিস ঝরে, জাগায় উচ্ছল প্রান
ছন্দে হাসে লহর, পড়ে বীনার তারে টান
নীল আকাশের সীমার পরে-
মন্দ্রধ্বনির ওঁ কারে-
আকাশ-মাটি-নদী  মিলে, প্রাণে জাগায় গান।
মায়ের বুকে অপার সুখে ঢেউয়ের কলতান।
*************************