প্রভু, দিও না সে ভার, যে ভার পারি না বহিতে
তুমি, দিও না সে ব্যথা, যে ব্যাথা পারি না সহিতে।
আমি ক্ষীণ অতি ক্ষীণ, নগন্য দীনহীন
তুমি বিনে একা আমি, দাঁড়াতে পারি না মহীতে।


আমার যা চাই, দিও হে প্রভু আমার চাওয়ার আগে
আমিই তো জানি না আমার ভালোতে জগতে কী সব লাগে।
চাওয়ার ভাষা যে শিখিনি, কী কী চাই তাও লিখিনি
তোমার দয়া কতটুকু চাই, তাও যে পারি না কহিতে।


পথে পথে এতো কাঁটা যে প্রভু, হাঁটিতে পারি না পথে
আঁধারের গ্রাসে হারায় সে আলো, দাও যা সুদূর হতে।
আমি পারি না দুপা বাড়াতে, কাঁটাহীন পথে দাঁড়াতে
তুমি যদি এই হাত না ধরো, সুপথে পারি না রহিতে।


যতই আমারে পুড়াও প্রভু, আমি যে হই না রত্ন
ছাই ছাড়া নাই শেষেতে কিছুই, তুমিই না নিলে যত্ন।
তোমার হাতের ছোঁয়া যদি পাই, কী হই তাতে কিবা আসে যায়
ছোঁয়া দাও প্রভু, করুনার ছোঁয়া, আর যে পারি না দহিতে।