প্রথম খন্ডের পর ...


রাজার চিকিত্সা (রোগ নির্ধারণ)


রাজ্যের যত বুদ্ধিজীবী এল রাজসভায়
যে করে হোক এ সমস্যার সুসমাধান চায়|
রাজ্য সভা ভ’রে গেল মোটা বইয়ের ভারে
যে ক’রে হোক মডেলটা চাই মডার্ন কম্পিউটারে|
অনেক ভেবে অবশেষে বুদ্ধিজীবি গন
বলল অতি জটিল নাকি মানুষের এই মন|
বৃদ্ধ যত শুন্য মস্তক শুভ্র লম্বা দাড়ি
জটিল তত্ত্ব ব্যাখ্যা করে শুন্যে দুহাত নাড়ি’|
সভা কাঁপে ক্ষণে ক্ষণে তর্কে ও বিতর্কে
নিচু গলার স্বভাব যাদের কে শোনে তার স্বরকে?
চশমা পরা যুবক যুবা, গলায় পরা টাই
জটিল শত তত্ত্ব তথ্য কম্পিউটারে ঢুকায়|
বৃদ্ধরা সব চেয়ে থাকে হতবাক বিস্ময়ে
বিশ্বে এলো একি যন্ত্র কি এক যাদু ল’য়ে?  
যা কিছু চাও মডেল ক’রে অতীত ভবিষ্যত
দিয়ে দেবে সহজ ভাষায় সঠিক অভিমত|
মন্ত্র ভরা যন্ত্র খানা চলল কয়েক দিন
দিবা রাত্রি বৃদ্ধ যুবা কাটাই নিদ্রাহীন|
অবশেষে যন্ত্র খানা ছাপলো কয়েক পাতা
কে বুঝে তার অতি জটিল কঠিন মুন্ডু মাথা?
শেষের কটা লাইন কিন্তু অতি পরিষ্কার
সবাই জোরে চিত্কার দেয়, “সন্দেহ নেই আর
রাজা যখন গিয়েছিল বিদেশ আর বিভূঁ'য়ে
কুপ্রথাতে গেছে সেথায় রাজার মনটা খুয়ে|
অতি সত্ত্বর করতে হবে মনের চিকিত্সা
রাজা কেন মানবে নাকো রাজার বিহিত্ যা?”


## এরপর আসবে শেষ  পর্ব "রোগ নিবারন"