পিচঢালা কালো রাস্তার বুকে সাদা দাগের আল্পনা -
কে জানে জেব্রাক্রসিং নাম তার দিয়েছিল কোনজনা!
কেউ কি ভেবেছিল, জেব্রা ক্রস করবে ওখান দিয়ে?
নাকি এ নামটা হলো জেব্রার গায়ের নকশা মিলিয়ে?


যাই হোক, বাংলাদেশসহ পৃথিবীর অনেক দেশেই
মানুষ ওখান দিয়ে ক্রস করতে গেলে দেহ তার পেষেই
দ্রুতগামী যন্ত্রদানব বাস, ট্রাক  অথবা মটরবাইক -
এ নিয়ে অসহায় পথচারী যতই করুক না স্ট্রাইক।


কৌতুহল জাগে, সত্যিই যদি কোনদিন এক জেব্রা আসে,
রাস্তার একপ্রান্তে দাড়ায় তা ক্রস করার প্রয়াসে  
এই দ্রুতগামী যন্ত্রদানবগুলি কি থেমে যাবে দুইপাশে?
জেব্রাক্রসিং দিয়ে জেব্রা কি পার হয়ে যাবে অনায়াসে?


স্রষ্টার পথের কোথাও কোথাও আছে নো-ক্রস রেখা
তবুও যদি কেউ ক্রস করে, হোক বা ন-হোক কিছু শেখা
সাদা দাগ পার হয়ে আবার আসতে পারে ফিরে
বোধহয় স্রষ্টার স্টিমরোলার চলে অত্যন্ত ধীরে।


জেব্রাক্রসিং যদি মানুষ বা জেব্রা কারো তরেই নয়
জানি না রাস্তার স্রষ্টারা কেন করে অহেতুক অর্থ অপচয়?
আমার মূর্খামীতে জেব্রাক্রসিঙের সাদা আল্পনা হাসে
লাল হতে মানুষের রক্তে প্রায়ই সে অবিরাম ভাসে।