বাংলা কবিতা আসর - বাংলা সাহিত্যের সর্বকালের সর্বজনীন  একটি সাধনচর্চার নাম। একাধারে কবিতা ও কবিতা বিষয়ক বহু সমৃদ্ধ ও মূল্যবান আলোচনা, প্রবন্ধের পীঠস্থান। বহু প্রতিষ্ঠিত নামী দামি কবি সাহিত্যিকের রচনায় সমৃদ্ধ এই আসরটি বর্তমানে বহু সমাদৃত। ঘরে বসেই প্রকাশিত কবিতা ও তার মূল্যবান মন্তব্য আমাদের নিয়ে এসেছে এক আদর্শ পার্থিব লাইব্রেরীতে যেখানে বসে ঘন্টার পর ঘন্টা কাটিয়ে দেওয়া যায় সাহিত্য সাধনায়। এ এক বিরল আবিস্কার অবশ্যই। এর জন্য এডমিন গনের দু:শ্চিন্তার অবকাশ নেই। এত পরিমাণ কবিতা, আলোচনার সঠিকভাবে পর্যালোচনা ও মূল্যায়ন করে সঠিকভাবে সংরক্ষণ করা। এক্ষেত্রে আমরা ভাগ্যবান তো বটেই। মাতৃমমতার মত প্রতিপালিত আমাদের সৃষ্টিবলয়।তারা যখন ক্লান্ত,পরিশ্রান্ত নাকে তেল দিয়ে আমাদের বেড়ে চলে ঘুম। কিছুই জানি না আমরা কিভাবে তারা বৃহত্তম এবং নির্ভুল এই কাজগুলো করে চলেছেন আমাদের আড়ালে। যেখানে আমরা ঠিকমতো জানি না অথবা জানার,দেখার ও পড়ার প্রয়োজন বোধও করিনা। একটা কবিতা পোস্ট করেই কর্তব্যের ইতি টানি। দেমাকে বেড়ে চলে বুকের ছাতি। এক্ষেত্রে বরেণ্য এডমিনগনের প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতার শেষ নেই অবশ্যই।
এতসব বৃহৎ কার্যের পর সামান্য একটু অভিযোগ না জানিয়ে স্থির হতে পারছি না। সেটি - যখন কোন টপিক অথবা কবিতা ব্যান করার জন্য মনস্থ করা হয় তৎক্ষণাৎ কাব্যের রচয়িতাকে অবশ্যই একবার নোটিশ করা উচিত বলে আমার মনে হয়েছে কারণ আসরে এডমিন কতৃর্ক অনুমতি প্রাপ্ত না হয়ে কেউই প্রবেশ করার অনুমতি পেতে পারে না। এক্ষেত্রে কোন নোটিশ না দিয়েই ব্যান করার অর্থ খুব স্পষ্টভাবে হলেও তাকে চরম অসম্মাণিত করা। ব্যাক্তিগত শত্রুতায় প্রভাবিত না হলে একবার ইমেলে অথবা তার প্রোফাইলে নোটিশ দিলেই তো বিষয়টি সরিয়ে ফেলা সম্ভব। ব্যক্তিগত আক্রোশ সাহিত্যকে কলুষিত করলে তা অস্বস্তিকর তো বটেই অসম্মাণেরও বটে। একটু ভেবে দেখতে অনুরোধ করছি।