গত তেইশে জুলাই একটি কবিতা পোষ্ট করেছিলাম। আট টাকা কিলো। কবিতাটি বছর ছয়েক আগের লেখা।
গতকাল একটি খবর শুনে মন থেকে ভীষণ মুষড়ে পড়লাম। আমরা সবাই জানি যে  একমাত্র কবিতাই রাষ্ট্র,সমাজ এবং মানবতাবোধকে প্রতিফলিত ও পরিচালিত করে। কবি মানবসমাজের বিবেক। স্বাধীন চেতনার সশস্ত্র অক্লান্ত সৈনিক। তার লেখনীর কাছে যুগে যুগে হার মেনেছে সাম্রাজ্যবাদী শক্তি।
কিন্তু আজ দেখতে পাচ্ছি সেই মানবতার চুড়ান্ত অবক্ষয়। উর্দু সাহিত্যের একজন বিখ্যাত এবং আমার অত্যন্ত প্রিয় কবি সাহির লুধিয়ানভি। তার লেখা অনেক গান হিন্দি ছবিতে প্রচুর জনপ্রিয়। এহেন একজন শ্রদ্ধেয় কবির পাণ্ডুলিপি, চিঠিপত্র এবং ডায়েরী পাওয়া গেল এক কাওয়াড়ীর দোকানে। বেদনায় স্তব্ধ হয়ে গেছি। অসংখ্য কৃতজ্ঞতা জানাই সেই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার কর্মিকে যিনি এগুলো আবার তিন হাজার টাকার বিনিময়ে পুনরুদ্ধার করেন।
আমাদের ভাবতে হবে। মানুষের সমাজে মানবতার স্থায়ীত্ব নির্ভর করে কবিতার উপরে। একটি মাত্র কামনা করি। বেঁচে থাকতে কখনো ভবিষ্যতে না যেন দেখতে বা শুনতে পাই যে কবির পাণ্ডুলিপি ঠাঁই নিচ্ছে কাওয়াড়ীর জঞ্জালে।