ধানসিঁড়ি, তুমি কেন আমায়
এমন ভিজে সুরে ডাকো!
গঙ্গা পাড়ের মেয়ে আমি
তবু্ও কেন আমার হৃদয়ে থাকো!


ভাটিয়ালি সুরে, মেঠো পথের গন্ধে
তোমায় অনুভবেই কেটে যায় আমার বেলা
মনে তুমি মননে তুমি,
তোমায় নিয়েই মাতাল আমি, নীরবে খেলি খেলা।


ধানসিঁড়ি তোমার ওই বিরহী চিলের ডাকে
আমার বুক ভাসে হিজলের নীরব কান্নায়,
মনসা নেই, নেই চাঁদের ভেলা
তবুও কেউ যেন বুকে আমার নাও ভাসায়।


ধানসিঁড়ি তোমাকেই দেখেছি স্বপনে শতবার
যতবার কেঁদেছি আমার চোখের জল
আর তোমার শীতল জল মিলেমিশে হয়েছে একাকার।


তাই তো তুমি আমার প্রাণের মত প্রিয়
একটিই শুধু বাসনা
জীবনানন্দের মতো তোমার বুকে আমারও জন্ম দিও।
..................................
(০৯/০৭/১৯)