বাংলাদেশেই জন্ম তোমার,
নিশ্চয় জানো এ দেশের পট পরিচয়।
বজ্রকন্ঠে আওয়াজ তুলে
রক্তের সাগরে ভেসে
সম্ভ্রমহানীর উপেক্ষা করে
ঠিকই এসেছে লাল সবুজের পতাকা।


আজ কেনো মিঁঞ মিঁঞ করে জীবনের
সময় হিসেব করো, ঘেউ ঘেউ করে হাড়ের পিছনে
ছুটছো কেনো, উচ্ছিষ্ট খুঁজো কেনো বল্গাহীন রাজনীতির।


সব ভুলে উর্ধ্বস্বাসে ছুটে চলো,
মা মাটি আর তার সন্তানের স্বাধীকারের কথা বলো
ঘোষণা দিয়ে এগিয়ে চলো
আমি উচ্ছিষ্ট নয় আমার খাবার চাই,
পূর্ণতা চাই স্বাধীনতার।
লোপাটের টাকায় করুণা নয়,
ভিক্ষে কেনো, লোপাটের টাকা ফেরৎ চাই।
ভিক্ষের দালান নয়, করুনায় জমি নয়
যা কেড়ে নিয়েছো তাই ফেরৎ দাও।
দলে দলে বিভাজন তুমি করো গিয়ে
আমার অধিকার আমায় দিয়ে
তুমি তোমার কুকরামি করো।
আমি চিনিনা গড ফাদার
চিনিনা মাফিয়া ডন,
আমারে আমি চিনি ওগুলোর কিছুই না আমি।
এই রাজপথ আমার, এখানে দাঁড়িয়ে তুমি একাই
বলবে কেনো কথা ?
আমার কথায় কি আছে যা সহ্য হয় না।
তবে তুমি ছেড়ে দাও পথ, দূর করো নেউতিগুলোকে,
যারা আমার করের টাকায় চলে।


আমার শ্রমের টাকা লোপাট করে তোমার অট্রালিকা
সে তোমার নয় আমার,
আমি সেখানে রবো, সাথে থাকবে নিগৃহীত বোন
মা-বাবাসহ নির্যাতিত সবাই।


আমি এদেশের সন্তান-নাগরিক
স্বাধীনতার স্বাদ চাই,
স্বাধীনতর ভাষা চাই,
যা আমার প্রাপ্য তাই দাও।