আজি মোরা প্রকাশ করি নিদারুন  ভালোবাসা!!
এটাই কি ছিল ভাষা শহীদদের আশা?
৪৮-৫২ এর চেয়ে বহুগুন বেশি!!
আজি সত্যি সত্যিই কি ভাষাকে ভালোবাসি?


প্রায় ছয় যুগ পার হলো-
সালামের আত্মা টা এখনো অশান্ত।
গুলির আঘাতে শফিউরের ছেঁড়া  কলিজাটা অতৃপ্ত।
রফিকের মগজের ছাপ গুলো ক্লান্ত।


জাব্বারের সেই ছোট্ট শিশু কি খবর জানিনা?
মাতৃভাষার পরিবর্তে বিলেতি  ভাষা মানিনা।
কি অকরুণ ভালোবাসা ছিল মাতৃ বুলির জন্য।
সেকি শহীদ মিনারের ফুলের তোড়ায় হারিয়ে  যাওয়ার পণ্য?


প্রশাসনে রন্ধ্রে রন্ধ্রে  বিলেতি ভাষার ছায়লাপের সীমা নেই।
এর শেষ পরিনতি কি হবে জানা নেই।
তারা এসেছিল কালও;
আমি কোন শুভ কথা শোনাতে পারিনি।


শোনাতে পারিনি বাংলা বুলি সবার উপরে রাখি,
আমার মলিন চেহারা দেখে যা বুঝার বুঝে নেয় তাদের আঁখি।


এখনও ঢামেকের পীচঢালা কালো পথে,
১১ বছরের কিশোরের ঝরা রক্তের দাগ ফুটে ওঠে।
সন্তান হারানো মায়ের কান্নার রোনাজারি
আজও কি আমরা ভুলিতে পারি?

তবুও কেন তামাশার ছড়াছড়ি?
ফুল নিয়ে বালক বালিকার কাড়াকাড়ি।
এখনো সময় চলে আসি সঠিক পথে আমরা তাড়াতাড়ি,
শহীদের স্মরণ নিয়ে না করি অযথা বাড়াবাড়ি।