ঘরের বেড়ায় টিন দিয়েছি প্লট আমার মাটি,
মাথার উপর ঠেকায় আকাশ ঘুমাই শীতল পাটি।
অনেক দিনের পুরান চালা টিন ধরেছে জং
পাল্টে গেছে টিনের আকার পাল্টে গেছে রং।
মাথার উপর ঘরের চালা ঠেকায় না আর ঝড়,
বদ্ব ঘরে শুয়ে দেখি খুঁটি টা নড়বড়।
চিন্তা আমার মগজ ভরা উপরে দিকে চাই,
ঘরে ভেতর শুয়ে এখন আকাশ দেখতে পাই।
কে একজনে ঠাট্টা করে হাসি মুখে বলে,
ঘরের ভেতর ফুটো চালায় খোদার দেখা মেলে।
বর্ষা এলো ঘনিয়ে সাড়া বৃষ্টি এলো তুমুল,
টিনের চালার ছিদ্র জলে ভিজিয়ে করল উশুল।
এমনি করে কাটল বর্ষা গায়ের উপর দিয়ে,
তাই বলেকি দোষটা চালের পচা টিন লাগিয়ে।
বিচার দিলাম টিনের আরদ  হলো কেনো এমন,
টাকা যেমন পণ্য মালের গন্ধ ছড়ায় পবন।
শীতের দিনের ভাবছি বুঝি বৃষ্টির ঝরা নাই,
শীতল পাটি রক্ত থামায়  শুইতে পারি নাই।
টিনের বেড়া তল দিয়ে আর আসে দেখি হিল,
ঘরে আমার অশাক পোশাক টান রয়েছে খিল।