কতোদিন কেটে গেল চলার এমনি
পায়ের কদমে পায়, চলার পেলাম,
বিশ্বাস করার মত পেলাম না কেউ।
নিস্তব্ধ নগরী এক, আবরণে ঢাকা।


হয়তো কোথায় আছে ধ্বংস স্তব্ধ চাঁপা
নয়তো কোথায় আছে ভিড় মুখ মাখা।
কতো দিন কেটে গেল চলার এমনি
পায়ের উপর ঠাঁই কেউকে দেখিনি
এমনি কতোদিন টা কেটে আনমনা


এমনকি বুঝতেও দেইনি কাউকে।
ছলনায় ডেকেছিল ছেড়েই আসছি
আমি এমন কাউকে খুঁজেছিল জানি।
যার কাছে বলা যায় অমারই কথা।


বলা যায় তারে কথা হৃদয়ের ব্যক্ত।
কতো জনই পেলাম রূপ দেখে চুপ,
তারপর ধীরে ধীরে কেটেই গেলাম
নিঃস্ব ছোঁয়ার একটু ভার মেলা নেই।


অবিশ্বাস্য পৃথিবীতে একা থাকা আর
আরো একি ভালো লাগে প্রতারণা দূর।
কতোদিন কেটে গেল একা কি ছিলাম
হয়তো কারোই এক তার অপেক্ষায়।


হয়তো এক রূপসী আমারে বুঝিবে
নয়তো নীলাঞ্জনিরই সঙ্গী হয়ে রবে।
কতলোকই পেলাম ভাসিছে আমারে
মতলব একটাই অর্থ নিয়ে ব্যথা,
একদিন তার ঘুম ভাঙাতে যাইনি।
চলতে দিয়েছি পথ মনস্থির নিয়া
বিশ্বাস করা যায়নি বিশ্বাস ভাঙার
শব্দ শুনেছি সে আমি তাহরই কাছে।


কতোদিন কেটে গেল চলার এমনি
বিশ্বাস করার মত পেলাম না কেউ।


অক্ষরবৃত্ত// ৮✝৬//