ঘুম ভাঙিয়ে দিচ্ছে চোখে প্রভাত পাখি
আজানের সুর অদূর থেকে আসছে ধেয়ে,
ডাকছে শুনি মুয়াজ্জিনে ঘুমিয়ে থাকি।
কলরবে ডাকছে কভু খোদার খেয়ে।


চারোদিকে বইছে বাতাস গাছের ডালে
পশু পাখি আঁখি বুলায় মাঠের দিকে
রোদের হাসি উঠুন জুড়ে যা চিক চিকালে।
ভোর পোহাতে জায় নামাজে বসছে ধিঁকে।


ঘুম ভাঙেনি কোন সে ঘরে দুয়ার ঘোরে
আলোর খেলা মুখ মাখেনি ছিন্ন খুরা,
গভীর রাতের মুঠোফোনের লব্ধ জুড়ে।
নবীন জাতির কপাল ভাঙার শৃঙ্খ চূড়া


নাক ডুবিয়ে থাকছে কেবা ঘুমের ঘরে
সকল দাসি মুখ বিলাসি দুর্বা হাসি
কোন জাতিরে দেখছে কিসে আলোয় পরে
ফুল ফুটাল বনের ঢগের বনবাসী।


পিপিলিকা রাস্তা বাঁধে দল বাঁধিয়া
রোজগার করি আনার ব্যাকুল মজুদ জুলি
খাবার জোগায় অন্নেষনের নাক ছেদিয়া।
আকাশ খানি সামনের দিকে গেল ঢুলি।


-যথারীতি কবিতটি স্ব র বৃত্ত
আমার ভাল লাগার একটি কবিতা ।
ঘুম ভাঙিয়ে/ দিচ্ছে চোখে/ প্রভাত পাখি