মনের মানুষ আজো দেখা দিল নাহি,
আমার চৌচলা ঘরে নির্জুম নিলয়।
আর কতো কাল থাকি এই পথ চেয়ে?
তবু যেনো মনে হয় রয়েছি অক্ষয়।
কতো দেখা দেখি চলে, থাকে ঝং সংশয়
পিছনে ফিরিয়ে দেখি অতীত টাটায়।
কঠিন পাথার মনে হেসে খেলে তায়।
আহা কি এমন রঙ জগত ফোঁটায়।


কেউ বড় স্বার্থপরী কেউ রূপ পরি,
কেউ ওই খুবি যার অভিনয় কারি
আহা কতো রূপ রঙ হাসির খোরায়
কেউ আছে যেনো নিজ হিয়া ভরা তুরি।


কতো মানুষ দেখেছি নাই অপেক্ষায়
আমি আছি একা যেনো এক পাহারায়!!
সকাল বিকেল যার খুঁজি সন্ধিক্ষণ,
সবাই যেন স্বার্থর নৃত্য ইশারায়।


আমাকে ডেকে ভুলিয়া কভু চলে যায়!!!
দেখি খেলা পেলা আহা মূর্ছা অভিনয়!!
তবু যেনো দুঃখ নাই একা একা বলি,
নির্জন ঝোপের বসে জুড়ে ভাবনায়।


আমার রয়েছে পাশে গাছগাছাল পাতা
ওহারা আমারি বুঝে কথা মনে হয়!!!
আমি বলি কথা ফুল প্রকৃতি বিলাসি
ওরা মোর প্রেম পাত্রী, আমার বেলায় ।।


এই নদী মাঠে তার নিজ পালা কন্যা
তাহার ফুল গাঁথিয়া হলুদ মাখায়
আমার আন্ধার গৃহে সাজিয়া রাখিছে
কন্যা এনে দেয় সুধা আমার আলয়।