কতোটা মৃত্যুর মাঝামাঝি দাঁড়িয়ে আমি,
আজ আমি এলাম নব প্রভাতেই কিনা,
মানুষের এই যে ক্ষণিকের ক্ষণিক ঘেরে ।
বেঁচে থাকতে হল কঠিনের মাঝারে টিকে
কতোটা নির্দয় হলে চলায় বুকে ছুড়ি।
সকল অবসানে পথ ছিরে এলাম আমি,


নব প্রভাতের দুয়ারের আঁখি তুলে দেখি।
নিজের চেনা মুখ বড় অচেনা মনে হলো
মৃত্যু টি এতোটা কাছাকাছি হলেই কভু
নিজের মাঝে চিনে রাখতে পেরেছি কি তাই
অতোটা পথ আমি পেড়িয়ে শুণ্য যে দেখি।


ও বন্ধু তুমি জেনেছ কি কখনো কুভু,
আজ কোন হেলায় রাখবে এই আমি কিনা,
সকল অবহেলা দ্বার প্রন্তে মায়া জাল,
কোথায় আমি দাঁড়া শোনো হে ভাই বলি কভু।


ভুলে গেছি আমার সমতলের চলার পথ,
আমাকে করেছে যে অনেক ক্ষানিক টি ভীতু,
কালের যাত্রায় সে কবির ধ্বনিত শুনি
আজ যেনো ছায়ায় নেমে আসলো কিনা পাড়ে,