মায় নাই ঘরে- খোকার এলো ঈদ
খোকার মনে নাই খুশির- তাকিদ ।
নির্বাক খোকা বুকের পাটা চিড়ে,
ভাষা নাই তার হাসি খুশি জিদ।


ভোর বেলা তার মায়ে রাঁধে  সেমাই
কেউ রাঁধেনা খোকার পায়েশ চাল
ভোর হলে আর ডাকে না কেউ উষ্ণ
ঘুম ভাঙেনা খোকার ভোর আজ-কাল।


ঘুমের ঘরে থাকে পড়ে খোকা,
ঈদের সুখে ভাসছে না মন পুড়ে,
খোকার মায়ের ডাক নেই দুয়ার পাড়ে
আর খোকার মার পায়না আদর জুড়ে।


খোকার কপাল পোড়া জানে কথা,
ঘুম ভাঙে না খোকার ঈদ ভোর বেলা,
শিশু কালেই খোকার মা দেয় ফাঁকি
খোকার কেউ নেই ঈদের দিন অবেলা।।


নতুন পোষাক তাহার গন্ধ নাই
হাসি মুখে খোকার ছন্দ নেই
খোকা যেন থেমে গেলো তাই
হৃদয় ঘরে খোকার হল খেই।