তোমাকে এ,আমি সবুজের বুকে যদি
কোনোদিন খুঁজে পাই,
আমি না হয় এ আমি সবুজকে
ভালোবেসে যাব একরাশ।
এই বাংলার রূপসী কবির পাশ হয়
হব জীবনানন্দ এ দাঁড়াব,
দেখিব তাহার ঐ সুদর্শন  উড়ে সন্ধ্যার ঐ আকাশ।


শুনিব ডাকিছে লক্ষ্মী প্যাঁচার
ঐ শঙ্খচিলে উড়িতেছে,
যদিও ভাসিছে পুকুরের জলে একটি হংস বনরাজ
আমি না হয় এ জীবনানন্দ
দাস কবি হবো একবার,
শ্যামল শ্যসল সবুজের বুকে নদীর মুগ্ধ সজ্জাস ।।


আমি যদি পাই নদীর কুলর
ফুলের ফলের বনের মৌসুমে সবুজের,
দেখিব দক্ষিণ বাতাস বইছে
কুড়ি পাতা দোল খায় ঘুরে।
দেখিব ঘুঘুর রাঙিছে লাল লাল পায়
এই বন গাছে চোখ দেখি।
যদি তোমারেই পাই খুঁজে আমি
এই বাংলার নদী খেত ভেসে জুরে।



তোমাকে যদিবা আমি খুঁজে পাই
নদীর কুলের বায়ুজুড়,
নরম ঘাসের দুর্বা শীতল,ঘাস ফুল ফুটে হাসিতেছে।


একটি গোলাপ হাসিতেছে ওই
ভোরের সকালে ফুটফুটে,
শোনিব দুয়ারে বটবৃক্ষ ঐ একটি কুকিল ডাকিতেছে।


৬✝৬✝৬✝/৪