অজানা স্বপ্ন বুনেছি একটি অবাক তাকিয়ে থেকে!!
সারাক্ষণ মন আমার ভিতর উপচিয়ে বসে আছে,
হয়তো তাহার তাসের ঘরের বাসি ফেলা ছাই আমি।


জীবনের খড়া টাটকা রোদন আমাকে পুড়িয়ে ছাই।
তানা  হলে তুমি কখনো আমাকে  হারয়ে ফেলতে না ক
অতীত আমার  কেটেছে ভীষণ ব্যাকুলতা নাই বলি,
কতো মুখ ছিল দেখা হয় নাই ফিরে ফিরে খুব কাকে,


আমি তবু যেন  খুঁজিনি কাউকে  খুজে ফিরি চলি! আর,
কেমন যেননা  তোমার ভিতর  স্বপ্ন বুনছি গেঁথে ।


অনেক অনীহা রাগের বসত করছি রাগের কাজ,
আজই আমার বুঝেতেছি ভুল পড়ছে মাথায় বাজ।
আমি চাই মনে  দেখিতে তোমাকে চাহন একটি বার
শুধরে নিবই আমার সেদিন বুঝেছিল ভুল আর!!


জানো নাই জেনে দাঁড়িয়েছি আমি প্রথম দুয়ারে শামি
মনে মনে লিখে দিয়েছি শুধুই তোমার নামই নাম।
ওগো প্রিয়তমা আমার বাঁধন জেগে আছ তুমি একা,
জীবনের তরে, সব কিছু মিছা, নাই পাই যদি দেখা।


আমি পারব না কোন দিন আর খুঁজিয়া এইনা তুমি
ছলনার ছলে  মনোর খেয়ালে হারিয়েছিল কী  কুল।


আমরিন তুমি একটি কবিতা শুনে যাও এই মোর,
কিছু ক্ষীয়মাণ  ভালো লাগা মোর কতোনা কঠিন তর।


আমি মনে করি তোমাকে একটি বার চাই শুধু আর!
জীবনের কুলে তুমি কী এঁকেছ ছবি ঘরে রঙতুলি।


আহা এই মোর জীবন বেদিতে পেলাম শুধাতে রঙ,
অগাধ বেসের চলাকে বলছ এ আমার সরলতা,
সেথায় আমার আমি নিশ্চুপ চলার বেদে বারতা।


২।


আগের জনম পুড়িয়ে আমিও আসতে
যদিও একবার পারিতাম,
তোমার দরজা ঠকঠক নাড়া অভিমান
শেষে আবারও নাড়িতাম।


নদীর কুলেই ভাসিতাম আমি তোমার
আমিও বাইতাম নদ খেয়া,
কাটিয়ে দিতাম সারাবেলা আমি
শতবার এই মনে অনুরাগ নেয়া।


আমি তোমাকেই ভেসেছিলাম!!ভালো
হারিয়ে যাইবা এই ভয় ঝর উঠে,
সবই যদিবা তোমাকে পাইযে
তোমাকে পেলেতো চাওয়া পাওয়া  মিটে।


জীবনের শুরু জীবনের শেষ!!
সকল কিছুর আগে যা যা পর জোটে।
আমি তোমারই  হতে চাই যেন!!  
চাইছি  সত্যি হৃদয় নিংড়েটা মোটে।


ভালবাসা দিয়ে পেয়েছি তোমাকে!!
কুড়িয়ে আনছি  একটি কুলের  মাঝে
এই আমারই জনম চাওয়া বারতা
বারোটা হৃদয়ের বাজে বাজে ।