ফুল নাই সুবাসিত মন নাই আজ ঘরে,
কাল থেকে কাঁথা গায় ভুগছি প্রেমের জ্বরে।
কবিরাজ ফেল মারে  জার ফুঁক দেয় করি,
বুঝিনা ডাইল সেকি চিন্তায় চিন্তায় মরি।


মায় বলে খায় নাকা মুখভার শুঁকে যায়,
কদিন জানি কি হলো আয় ছেলে বুকে আয়।
খায় দায় সব ঠিক মন ভেগে দেয় দৌড়,
ঘরে থাকা নাই হয়ে নিজেরই অগোচর।


আয়নায় মুখ দ্যাখি ঘনঘন ফিরে চাই,
আপন প্রাণের ভিত্তে ছায়াছবি খেলে ভাই।
ডাক্তার বাবুর বড়ি, লাগে খু খুবই ত্যক্ত,
টেবলেট বড়ি খাই বলিনা খুলেই ব্যক্ত।


চুপচাপ থাকি খুব কথা নেই মুখ জুড়ে,
নিদ্রায় ভেঙেই পড়ি মাঝে মাঝে মাথা ঘুরে।
কল্পনায় ভেসে উঠে তাহারই ছবি টাই,
মনে হয় বাস্তবেই চলে আসে চোখ ঠাঁই।


সুখগুলো ধরা দেয় তাহারই পাশ টায়,
মনে হয়  তফাৎ এর গগনের চাঁদ টায়।
ভালা ভালা কথা বলি বুলি গেল পাল্টে
আজব আজব হল একি সদা খিদে উল্টে।