অনেক কালের ভিরে হারিয়ে অনেক কাল গেছে ছিরে,
পুরাতন প্রাসাদর ভেঙে ক্ষয়ে পড়ে হলো চুরমার।
মাটির স্তবক গুলো ধুলিসাত হয়ে ধসে পড়ে গেছে,
বহুদিনের কবের জ্যান্ত দেহো রাখা লাশ নিশ্চহ্ন,
কালের ভিতরে কাল এভাবে, মুছে গিয়াছ নিরাকার।


এভাবে হারাল ওই আগামীর খুজে ফেরা দিন গুলি
মানুষ ভুলছে এই অতি সহজতর চেনা যতো মুখ
কেউ থামেনি কেউনা কালের কথা কেউ কি রাখে মনে
কেনো রাখবে মনেই জগত তোই আধিপত্য বিস্তার
কালের সাক্ষী ওই আকাশের সূর্য্য চন্দ্র রুখ।


সকল ধংসর শিলা, থেকে বেড়িয়ে আসা অদ্ভুত তার,
নতুন প্রবাহমান কালের যাত্রা ধ্বনি অদূরে ক্ষণ,
কাছে এসে যায় ফিরে  প্রতিনিয়ত ভুলে চলে মুখ টিকে
তবু মনে রাখে এই অভিনয়ের জগত সংসারের লোক,
চোখ ডাকনায় মেখে মায়াময় ডেকে রাখা আবরণ।


কাল অভিশাপ শুনি, কবর থেকে মৃত্যুর আর্তনাদ,
এই কাল পথ জুড়ে বহিয়াছে চির একি শ্রোতে বেগ
মানুষের হুংকার কী এখনো রয়েছে বিদ্যামান ধর,
নাকি কেউ যুগ যুগ, নিজের আওতায় লটকে রাখে
রাজা রানী প্রজা থেকে ধনাঢ্য বাগান চিরকাল ভাগে।


অনেক কালের ভীরে, হারিয়ে গেছে চাহনি দিন কাল,
মাটি ভেদ ফেটে উঠা কালের ধংসার মিশ্রিতর চুর্ন,
এমনকি কতো কাল, এলো গেলো যতো আসে নাই
প্রাণ,
আসে নাই চেনা মুখ, আসে অচেনা কেউ আপন
করে,


সে চলে যায় না হয়, সে থেকে যায় কেউ চলে
তা ছিরে,
আসে নাই কেউ ওই পৃথিবীর দিগন্ত টি ছেদ করে।



অনেক কালের ভিরে/ হারিয়ে অনেক কাল গেছে/ ছিরে,
পুরাতন প্রাসাদর ভেঙে/ ক্ষয়ে পড়ে হলো চুর/মার।
মাটির স্তবক গুলো/ ধুলিয়ান হয়ে ধসে পড়ে /গেছে,
বহুদিনের কবের জ্যান্ত/ দেহো রাখা লাশ নিশ্চ/হ্ন,
কালের ভিতরে কাল/ এভাবে, মুছে গেল যা নিরা/কার।


এভাবে হারিয়ে যায়/ আগামীর খুজে ফেরা দিন /গুলি
মানুষ ভুলেই যায় /অতি সহজতর চেনা যতো/ মুখ
কেউ থামেনি কেউনা/ কালের কথা কেউ কি রাখে/ মনে
৮✝১০