অচেনা র ভীরে হাঠাৎ কইরা
দেখা হইছিল এক
নাম জানিনা কি? কিসের মানুষ,
ধ্যাত তুরি তার ধ্যাত।


অল্প অল্প লুকাই যাচ্ছি
যাব না এসব ঘেড়ে,
মানছি নিজতা করছি শপথ
ভাল যে হবেনা জেরে।


সুখ রে আমার দুকরে কাঁদছে
আবার ভাবছি কী?
ফালতু লোকের ঢোঙা কাগজ
গুষ্টি শুধাই ছি!
থাকব নিজের প্রক্ত কইরা
লাগুক যতোটা মায়া,
ও ধার ধারিনা পাড়ও পাড়িনা
পড়ুক যতোটা ছায়া।


ভালা লাগা খান হের! চেয়ে বেশি
কাইরা লাইছে হেং
তেরা বাকা হেটে হাটি নিজে চলি
লাগছে যেন হেং তেং।


সারাবেলা চাই নিজের মতন
আইব একটি লোক,
তারে দেইখা মুইছা যাইব
বেদনার সব শোক।


কেবা আইলো কী নকল আসল
বুঝল না মন আগ,
আগে ভাগে ভাগি পড়ছি  হইরা
হইছিতা দুই ভাগ।


একদিন ঠিক খুইজা পাইছি
আমার প্রিয় জন,
তখন আমার পিড়ার আঘাতে
কাঁপছে বৃন্দাবন।