গীতিকবিতা
- মুহাম্মদ মুসা


আমার বইছে একলা দুপুর
এক সে কন্যার পায়ে নূপুর
আলতা রাঙা পায়
হঠাত দেখি ওমনি করে
হেইলে দুলে হেইলে দুলে
এমনি চইলা যায়,


মাথায় বাঁধা খোপায় ও ফুল
এলো কেশের লম্বা ও চুল
মন যে খুব উতলায়,


হাতে পড়া রেশমি চুড়ি
গায়ে মাখা হলদে শাড়ি
কোন রূপসী যায়,
ঝুনঝুনা ঝুন নূপুর বাজে
নরম পায়ের চড়ন লাজে
মন উদাসী বায়।


সেই নূপুরের শব্দ কানে
কলমি লতা শাপলা জানে
তাহার ছোঁয়ার গায়,
অমনি করে উঁকি মেরে
আপন মাখা মুখ তা ভুলে
কন্যার মন শুধায়।


কোন বাতাসে দোলে রে দুল
কোন বাগানের গন্ধ আকুল
কোথায় চলে যায়,
কোন রূপকে পায়েল দিছে
কোন দখলে তা হায় নিছে
না এক অপেক্ষায় ।