শয়তান কে কে চিনেছে বর্ণ কি দুইটি শয়তান,
মানুষ শয়তান জ্বীন সুরূত বেশ থাকা,
শয়তানের ঘার তেরা ঘরের দুয়ার সাকা,
লোভী হিংসুক কষুলতার নিজে  ভালো।


আগার পাছায় ঘু লাগানো দুর্গন্ধ গেষ ত্যক্ত,
সাবার পাছায় লাগাতে ঘু দারুণ চৌখস মক্ত।


শয়তান চিনতে ভুলছে মানুষ আজকাল বেশি দিনভর,শয়তান গলায় শক্ত কন্ঠ কাপে রূহু থরথর।


শয়তান নহে কেমন তরো শয়তান দেখছে,
মানুষ পিছন লেগে ঘুরে থেকে বেড়ায় রূপে,
জ্ঞানী বলে মানুষ শত্রু মানুষের ঘাত
মিথ্যার পক্ষ সামিলের বাত মুখ শয়তানি খুবে।


শয়তানের শুখা মাথায় চড়ে নাহি নোয়ায় নতো,
হাজার সত্যি নিজের কাছে ভাবে মিথ্যার মতো।


শয়তান চালাক হয়ে গিয়ে  ভদ্রলোকি সুরুত,
গোপন গোপন চালায় মন্ত্র চলে পুরত পুরুত।
আজকে সদা ধরন মানুষ  কালকে বটে,
তেজি গরম রাগি,
লোভ লালসা  কথার চাপে  অমানুষ পথ
চেনার শয়তান ভাগি।


শয়তান মানুষ নহে তবেই শয়তানের পথ
চলতে গিয়ে হাজার ভুলে চলে?
শয়তান চালার শতো মন্ত্র বষ ফুরিয়ে
নিভে বাতি জোর জুলুমের বলে।
মানুষ শয়তান ওভাই নহে মানুষ আসে
উত্তম পন্থির জন্ম,
মানুষ চেয়ে  মহান সত্য  জাতি বর্ণ যেনাই
ধর্ম।


ছন্দ গোলমাল আছে বলে দুঃখিত