মুখশ্রী সিঁদুরে এলোমেলো করে দাঁড়িয়েছো ,
এই  জিঞ্জাসায় : কোন বিদগ্ধ প্রেমে ,
ছিন্ন দেবদারু করতলে দৃশমান -মৌলিক বিষাদ ?


তবু অকুলে জেগে রই,
বিবর্ণ বর্তমান ,
ম্লান নক্ষত্রের নিচে বিবক্ষায় ,
কিন্তু না,
আর তোমাকে নয় ;
তোমার দুই হাতে নিষেধ মুদ্রা
আমি দেখি স্ফটিক প্রভায় ;
দুঃস্বপ্নের গৌরবে ,
কিম্বা ,
জীবন- মৃত‍্যুর সীমানার ক্ষীণ নগ্নতায়;


তাই এ প্র্রশ্ন অবান্তর ;
পুড়েছে মুখের চন্দন;
আজ ভুল রচনার দিন ,
স্মৃতির​ শিকড়ে একান্ত সত্ত্বায় ।


যেখানে হেমন্তের শীতের
গাঢ় অন্ধকারে নিভৃত স্বপ্নের মধ‍্য
তোমায় চিনব না ব'লে,
চুম্বন দূরত্বে​ দাঁড়িয়ে
চোখ বন্ধ করে বলতে ইচ্ছে করে -
যাওয়ার আগে অন্ততঃ
আমার এ ওষ্ঠ ক্ষত-বিক্ষত করো ;
যেন চুম্বন-যোগ‍্য না থাকে,
মুখ ফুটে বলে যাও _
'অসহায় কিশোরীও তোমাকে নেবে না আর ।'


পুরোনো ছবি মিলিয়ে যাবে ব'লে _
আমৃত‍্যু বন্ধ রাখি দু চোখ ।।