শেষটা এভাবে হবে ভাবিনি কোনদিনই -
পর্বতের চূড়াজুড়ে ছিল তোমার নামের প্রতিধ্বনি ।  
স্বপ্নের যানবাহনে ভেসে বেড়িয়েছি কতনা সাত সাগর,  
এক অজানা পথ, অজানা দেশের অজানা নগর ।।


অনুভূতিগুলো আবেগপ্রবন,আর ছিল কতই না এলোমেলো ;
তোমার ভোরটা যেদিন আমার চোখের ঘুম ভাঙালো ।
অনেক দুরের বাতাস ছুঁয়েছিল ওই গোধূলি-সন্ধ্যার মিলনে -
আর রাতটা কেটেছিল পেয়ে হারানোর অনুশীলনে ।।


গোপন কথাগুলো সেইদিন গোপন ছিল না যদিও ;
কালো রঙে এত রঙ মিশে আছে দেখিনি আগেও ।
অবহেলার অবকাশে মিষ্টি ব্যাথাগুলো অনুরোধ মানেনি -  
চোখের জলটা লবণাক্ত সেদিনের আগে কখনও বুঝিনি ।।


যে কথাগুলো লেখা ছিল, আঁকা ছিল মনের খাতায় -
সত্যি হবে কি? চলো না ছবি হয়ে রব ইতিহাসের পাতায় ।
শেষ থেকে শুরু করে এগিয়ে চলি , স্মৃতির সাথে কথা বলি ;
দেখা হবে আবার কোনো এক মোড়ে, এখন তবে চলি ।।