আছো তুমি সেথায়, নাই এই ভবে
আছো তুমি হৃদে, শোকে-অনুভবে।
দিয়ে গেছ প্রেম, নিখিলের মাঝে
ছড়ায়েছ দ্যুতি, তব নিত্য কাজে।
ছিন্ন করে মায়া,  গেলে মৃত্যু পারে
স্মৃতি বলো কে, ভুলিতে আর পারে?
সুখেই থাকো তুমি, অমৃত লোকে
তোমারে স্মরণ করি, অবিরত শোকে।।
পরলোকেই নিয়েছ, চির শয্যা পেতে
তোমারে সদা পাই সংসারে নিভৃতে।
তোমার অনন্ত আবাস, অন্তর মাঝে
সকল কর্মে স্মৃতি, গৌরবে বিরাজে ।
চির জ্যোতিতে থাকো, আনন্দ নন্দনে
পূর্ণ করি এই প্রাণ, তোমার স্মরণে ।।
রয়ে গেছ হৃদে, হয়ে  চন্দ্রহার;
তোমার স্মৃতি-
ভুলিতে কি পারি আর?