ফিরে যেতে হয় বারবার ঐ মাটির টানে,
ছায়া ঘেরা, পাখি ডাকা গ্রমে, অজানা আকর্ষণে।
অভাবি সংসার চালাতে ছুটে চলি দূরে আরও দূরে,
চাকরির খোঁজে অর্থের লোভে বেড়াই ঘুরে ঘুরে।
যদি কিছু পাই! উপার্জন রোজগার কিছু হয়। তবে
ভাবি! মাটির টানে আবার ফিরে যাব কবে!
মা-বাবা, ভাই-বোন সবাই চেয়ে আছে পথে,
কত দেরি আর! কখন দেখা হবে তাদের সাথে।
খেলার সাথীরা, স্কুল বন্ধুরা আজ বড় বড় পদে,
ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে, বিপদ মোর প্রতি পদে।
অভাগির যা হয়! যে দিকে চাই সাগর শুকায়,
তবু বারবার ফিরে যাই মাটির টানে। অজানা মমতায়।
সবাই আছে, সবই আছে মোর; আবার কেউ নাই,
দূর দূর করে, হৃদয়ে আজ অচেনা অজানা ভয়।
দুরে চলে যাই এ শান্তির মায়াময় গ্রাম ছেড়ে,
থাকতে পারি না বেশিদিন দূরে, অন্তর পোড়ে।
সবাই দূরে ঠেলে। তবু থাকতে পারি না দূরে,
মাটির টানে। অজানা মমতায় আবার আসি ঘুরে।