নারী তুমি চলতে শেখো বলতে শেখো বাঁচতে শেখো একা
তোমার হাতেই বদলে ফেলো তোমার ভাগ্য রেখা।


নারী তুমি তোমার জীবন তোমার মতো গড়ো
হও সাহসী প্রতিঘাতে রুখে দাঁড়াও যদি তোমায় আঘাত করে নর।


নারী তুমি গাইতে পারো বাইতে পারো দুর্গম গিরিপথ
কুকুর ভয়ে থামবে কেন তোমার চলার রথ
তুমিই যখন জয় করেছ হিমালয় পর্বত?


নারী তুমি নও কেবলি ভোগ্য পণ্য সন্তান জন্মের যন্ত্র
ধ্বনিত হোক তোমার কণ্ঠে মুক্ত হওয়ার মন্ত্র।


নারী তুমি আর ফেলো না দুঃখে চোখের জল
দেহের ভাঁজে আছে তোমার ফুলের পরাগ শক্তি সাহস নীল কামনার ঢল
ভাসিয়ে দাও সব অনাচার শক্ত করো সুপ্ত মনোবল।


ঝলসে ওঠো বজ্রের মতো সকল ক্ষত
মুছে দিয়ে গৃহের বাঁধন ছাড়ো
দেখিয়ে দাও জগতটাকে গড়ে নিজের ভাগ্যটাকে তুমিও সব পারো।


থামবে কেন নারী, সব হতাশা ছাড়ি
আওয়াজ তুলো সুযোগ পেলে আমরাও সব পারি।


ভয় পেয়ো না নারী
মুক্ত আকাশ ডাকছে তোমায়
বাইরে এসো গৃহকোণের বাধা বন্ধন ছাড়ি
খুব সাহসে দিতে হবে ঢেউয়ের সাগর পাড়ি।


থামবে কেন নারী তুমি থামবে কেন নারী
যুগে যুগে তুমিই হবে জয়ের ধ্বজাধারী।
২-৬-২০১৯