=
তোমার রক্তে, সঙ্গিতে'র মূর্ছনা- ছড়িয়ে দেবার আসক্তি
আমায়- কোনো-কালে'ই কাবু করতে পারে-নি৷
জ্ঞানে'র ছাত্র হিসেবে, আমি-তো সব সময়-
নীতি ও আদর্শ-কে পূঁজি করে, চলেছি৷
যদিও মেধাবী হওয়া'র জৌলস- নিয়ে,
হৃদয়ে পুষি-নি বিত্ত-বৈভব, যশ-খ্যাতি'র আড়ম্বর৷
বোকা-দের দেখানো'র ইচ্ছে ছিলো-না, পান্ডিত্বে'র অহকার৷
তালু-বন্ধি করবো- কখনো ভাবি-নি, সামাজিক প্রভুত্ব৷
অথচ- বাস্তবতা এমন হয়ে গেছে, যে-
না চাওয়া বাসনা-গুলো,
আমায় রঙ্গীন করে তুলেছে, সর্ব-দাপটে৷
-------
তোমার না-ছোড়-বান্দা অনুভবে'র মূল্য দিতে দিতে,
আজ- জীবনে'র মূল্য-বোধ বিপরীত স্রোতে বয়ে চলেছে,
তরী-বিহীন মহা-সমুদ্রে৷
নিশ্বাসে এখন- অক্সিজেনে'র চেয়ে,
সীসা'র আধিক্য'ই বেশী বোলে মনে হয়৷
দেহে লক্ষণ-হীন ভাবে, ক্রমে'ই
অস্তিত্ব বাড়িয়েছে, পরপারে'র আশীর্বাদ৷
সব নীতি আদর্শ- মেঘনা'র জলে ভাসে!
দীর্ঘ সময়ে'র পথ- পাড়ি দিয়ে, দেখি-
বীরে'র মতো- কাছে টেনেছি, কেবল- শূন্যতা৷৷
=
রচনা-কালঃ ৩০/০৬/২০১২ইং
=
মার্জিত রূপ- সংস্করণে৷
=