নির্মল রাত, পূর্ণিমা চাঁদ,
ইশারায় বুঝি দিয়ে যায় ডাক;
দুষ্টু তারারা মিটিমিটি চোখে
মিষ্টি হেসে ডাকে বারেবারে,
সে অবাক চোখে দেখে-
পাগল বলে লোকে।

ভোরের বেলা ঘুম ভাঙে তার
পাখির কূজনে কাটলো আধাঁর,
কান পেতে শোনে ঐ শোনা যায়
গাছের শাখায় পাখি গান গায়,
মুগ্ধ সে গান শোনে-
পাগল বলে লোকে।

যান্ত্রিক আজ মানবসমাজ
চোখ থেকেও দেখতে নারাজ,
এরই মাঝে সে অন্যরকম,
কয়লাখনির হীরকরতন,
কেউ বোঝে না তাকে-
পাগল বলে লোকে।

প্রহর গোনা জীবনের ফাঁদে,
হিসেব করে লোকে হাসে কাঁদে,
ঘড়ির কাঁটায় মরণবাঁচন,
সময় তালে প্রলয়নাচন-
তবু কোনো বন্ধ ঘরে,
উদাসী এক বাউল সুরে,
সময় থমকে থাকে-
পাগল বলে লোকে।।