এই সেই কবিতা তোর মনে আছে কি ?
যে কবিতা দিয়ে তোর হৃদয় ভাষা বুঝতে চাইতাম।
এই সেই কবিতা যার দ্বারা নিজের অবক্তব্য কথা গুলো
তোর হৃদয়ে গেঁথে দিতে দিতাম, হয় তুই বুজতিস না।


আজ আর কবিতা নেই, নেই কোনো কবিতা বোঝার মানুষ
কিন্তু আমি আজো রয়ে গেছি, সেই নিঃসঙ্গ একা।
আজো আমি বুজতে পারি না ভালোবাসার মানে
ভালোবেসে যদি ভিতরের হৃদয়টা বুজতে না পারে
জানি না ভালোবাসা বলতে কে কি জানে আর সে কি জানে?


আমি তো চেয়েছি ভালবাসতে তার কাছে আসতে
তবে সেটা সমাজ পৃথিবী আর ধর্মীয় দৃষ্টি দিক ঠিক রেখে।
তবে আগ বাড়িয়ে তথা কথিত ভালোবাসা নয়।
যা সচরাচর রিক্সা, পার্ক অথবা কোন রেস্টুরেন্ট হয়।


আমি ছেলে/মেয়ে তবে সেই ছেলে/মেয়ে নই
যাকে যে কেউ চাইলে পায়ে যাবে আর অভাবে
কেউ ভালোবেসে নিজে কে বিলিয়ে দিলেই
ঝাঁপিয়ে পড়বো ক্ষুধার্ত শকুনের নেয় অথবা
বিলিয়ে দিব নিজেকে অযাচিত ভালোবাসায়।


আমি চেয়েছিলাম তাকে ভালবাসতে তার কাছে আসতে
জীবনের বাকীটা সময় ধরে, তার অতিথ কে ফেলে
নতুন ভবিষ্যৎ কে আঁকড়ে ধরে অভ্যস্ত হতে;
কিন্তু আমি হেরে গেছি তার অতিথ অভ্যাসের কাছে।


সে একটু বুঝে নি বুঝতে চায়নি আমাকে
তার জন্য আমার হৃদয়ে কতটা ভালোবাসা আছে।
তাই আজ বেজেছে আমার বিদায় ঘণ্টা
আর তাই খুশিতে উচ্ছ্বসিত আজ তার স্বাধীন মনঃ টা।


রচনাকালঃ ঢাকা, ১৬-০৯-২০২০ ইং | সময়ঃ সন্ধ্যা ০৬ঃ০৫মিঃ