দোহাই লাগে দাদি আমার
করোনা তুমি বঙ্গবন্ধুকে অপমান,
তিনি মহান নেতা, মহান মানুষ
তিনি বাংলাদেশের মানসম্মান।

শতজন্মবার্ষিকী মোরা পালন করবো
মুখরিত এক সুন্দর উংসবে,
যা চির স্বরণীয় থাকবে মনে
এক উজ্জল দিন হয়ে রবে।

কিন্ত দাদি সব ভেস্তে যাবে
যদি কু-ব্যাক্তিকে করো আমন্ত্রণ,
কুলশিত হয়ে যাবে এই মহান দিন
নষ্ট হয়ে যাবে তোমার ওই নিমন্ত্রণ।

বঙ্গবন্ধুর উছিলায় আমরা সম্মান পাইছি
পাইছি হাসার,কথা বলার অধিকার,
তো তুমি কেন কু-ব্যাক্তি ডাকিতেছো?
করতেছো তাকে বার বার স্বীকার?

যে কিনা খেলে রক্তের সাথে
মানুষের অধিকার নেয় কারি,
যে কি বর্ষাতে চায় তাহার অধীনে থাকা
নিরীহ অসহায় মানুষের রক্ত-বারি।

তো দাদি কিভাবে ভাবলা তুমি
সে শতবার্ষিকীকে আসার যোগ্য?
তুমি কি ভুলে গেলে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ?
তুমি কি কুব্যাক্তিটার কর্ম সম্পর্কে অজ্ঞ?

না না দাদি যারা যোগ্য ছিলো
তারাতো অনেক আগেই মরে গেছে,
যাদেরই বা একটু মিল আছে আর্দশে
তারা ওইখানে খুব কষ্টে বেঁচে আছে।

আকুল আবেদন দাদি তোমার কাছে
তুমি দয়া করে তাকে প্রতিহত করো,
আমাদের কাছে তাহার চেয়ে
আমার দেশের সম্মান ও বঙ্গবন্ধু বড়।

যদি প্রতিহত না করো দাদি তো
একটা কথা দয়া করে মনে রাখবা,
তুমি হয়তো এই প্রথম বারের মতো কোন
বড় ইতিহাসের স্বাক্ষী হয়ে থাকবা।