পড়ার পথে যাওয়ার সময়,
এক বন্ধুর সাথে দেখা হঠাৎ,
ভালো হইলো তাহলে এখন
যানে একসাথে উঠা হুটহাট।

সবকিছুই ছিলো ঠিকঠাক,
হঠাৎ নিচে তাকিয়ে দেখা,
খেয়াল করে দেখলাম
আরে ওর প্যান্টটা তো ফাটা।

বললাম বন্ধু,পরার সময় তুমি
একটু কি খেয়াল করো নাই,?
যাচ্ছো কাজে, শহরে আবার,
কি প্যান্ট পরিধান করে ভাই?

এমন লাগে কোন ভিক্ষুক তোমায়
গেছে নিজ ইচ্ছায় দান করে,
না দেইখাই প্যান্টটা ধরে তুমি
নিয়ে নিয়েছো শুধু  পরে।

সে বললো, আরে ব্যাটা,
এটাইতো দেশে চলে  আজ,
এমন প্যান্টই পরে এখন সবাই,
থাকুক পড়া অথবা কোন কাজ।

কথা শুনে অবাক আমি,
এটাই বলে এখনকার স্টাইল?
ছিড়া ফাটা প্যান্ট পইরা পোলাপান
কিভাবে চলে মাইলের পর মাইল?

বললাম,দাম কতো বন্ধু?
বললো সে,এক হাজার টাকা,
ভাবলাম আমি ওরে ভিক্ষু প্যান্টরে
তর জন্য ওরা পকেট করে ফাকা।

বললাম, বন্ধু দেখো তাকিয়ে
আমার প্যান্ট দেখো কি ফকফকা,
তোমার ছিড়া প্যান্ট হাজার নিলেও
আমার  প্যান্ট মাত্র চার শত টাকা।

( একটি সামাজিক ব্যাঙ্গ প্রহসন কবিতা)