প্রাচীন পরিচয় অবধি কাঁদায়
বেদনা ভরা কত অনুশোচনায় ।
কত পরিতাপ, কত অনুরাগ
খুঁজে দেখ সব ভালোবাসায়।
স্মৃতি বিজরিত কত যে স্মৃতি
ছলছল মোর নয়ন কোনে।
স্বপ্নেও শুনে ঘুম গেছে ইতি
তোমার নূপুরের কলকঙ্গনে।
গোধূলীর বেলা কত প্রেম খেলা
কেটেছে সময় ছাড়া অনুনয়,
সেই ধরলা ব্রিজের পাড়ে
তা মনে কি তোমার পড়ে।
অশ্রু ঝড়ালে এই দুটি মনে
আদরে সাজানো কত স্বপনে,
যদি ভূলে যাও, যাও ভুলি সবে
সারা জনম নিরবে আমায় কাঁদতে হবে।
দেখনা চেয়ে আমি কেঁদে ফিরি
মোর বুক ভাসে চোখ জলে,
নিরবে ভালোবেসে কত হাসি হেসে
আজ আখিজল সরবে কথা বলে।
আমার এ হৃদয় নয় গহিন অরণ্য
বসে আছি শেষে মুদিব নয়ন,
রাখা আছে খোলা ফটক খানা
নিশা-প্রভাতে শুধু তোমারি জন্য।