১৯৭৩ সালে ১লা জানুয়ারী আমার জন্ম পশ্চিম বঙ্গের দ: ২৪ পরগনার মথুরাপুর গ্রামে। স্নাতক ক: বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৯২ সালে বাণিজ্য শাখায়। আমি যখন পঞ্চম শেণীতে পড়ি তখন আমার পিতৃ বিযোগ ঘটে। তারপর আমার মা আমাকে ব্হু সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বড় করেন। এখন আমি বিবাহিত, ৫ বছরের একটি পুত্র সন্তান আছে - রূদ্র প্রসাদ বন্দ্যোপাধ্যায়। বর্তমানে আমি Power Sector-এ Accounts Dept.-এ কর্মরত।  


যখন আমি কলেজের প্রথম বর্ষে পড়ি তখন থেকে লেখালেখি শুরু করি।  সময়টা ১৯৯২ সাল। তার ১ বছর পর একটি লিটিল ম্যাগাজিনের (নব-বার্ণিক) সহ-সম্পাদক হিসাবে যোগদান করি।  প্রায় ৭ বছর ধরে এই কাজ করতে থাকি।  এ সময় আরো নানান পত্রিকায় লেখা পাঠাতে থাকি।  আমার প্রিয় কবি হিসাবে আমি প্রথমেই রবি ঠাকুর ও তার পরেই সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় মহাশয় কে পছন্দ করি। মানুষের মাঝখানে থেকে মানুষের কথা লিখে নয়, তাদের সাথে পথ চলা শুরু সেই ১৯৯২ থেকেই শুরু হয়েছিল  .... আজও তা চলমান।  বেশিরভাগ লেখাই তাদের নিয়ে  ..... আমি ভালোবাসি আন্দোলন  .... বাঁচি আন্দোলনের মধ্য দিয়ে। ২০০৫ সালে একটি কবিতা 'সুনীল' বাবুকে পাঠাই (প্রার্থী), তাঁর  আস্থাভাজন হই ও অনেক শুভেচ্ছা পাই।  আমি নিজে কবিতা লিখি বটে তবে অন্যের কবিতা আবৃত্তি করতে বেশি ভালবাসি। ২০০৮ সালে চণ্ডীগড় থেকে সপ্তম বর্ষের আবৃত্তির কোর্ষে প্রথম শ্রেণীতে ডিগ্রী লাভ করি। এছাড়াও নানা জায়গায় আবৃত্তি করে থাকি আমন্ত্রিত শিল্পী হিসাবে।


আর যতদিন লিখব, তাদের নিয়েই লিখব যারা সর্বহারা  .....লিখব তাদের আগামী দিনের ঘোষণা। আপনাদের সাথে আজ শেয়ার করলাম।  
পথ চলা শুরু হলো ...