আলোচনার আসরে প্রথম লেখা, কোনো অভিযোগ নয় বরঞ্চ পুরনো জয়গান!


সদ্য আমার একটা কবিতা ব্যান হয়েছে অশ্লীলতা অভিযোগে, অভিযোগটা ঠিক ছিলো, কিন্তু ব্যাপারটা ছিলো সেই পুরনো ঐতিহ্য কবি বিচারক দের....!
এটা যেহেতু একটা কবিতার আসর, তাই সীমাবদ্ধতা থাকবে প্রকাশের কিন্তু কবিতার কোনো সীমাবদ্ধতা নেই....  


"নিষিদ্ধ ছাপকে" যদি সার্জারি করে নতুন ভাবে মিষ্টি উপাদান দিয়ে পোষ্ট করি, তবে এটা একটা সাধারণ কবিতাই হবে (যেমনটা আমার অন্য সব কবিতা)...
এটা আমার প্রথম ব্যান কোনো কিছু, এবং এই জাতীয় লেখা দ্বিতীয়টি নেই যে, আবার ব্যান হবে...


পণ্ডিতদের এই শ্লীল অশ্লীল (ধর্মীয় বাংলা কবিতার রীতিনীতি ) English literature এ খুব একটা গ্রহণ যোগ্য নেই....


জীবনমুখী এই ঘরানাটার একটা সীমাবদ্ধতা আছে, যা "রগরগে " হতে পারবেনা, বরঞ্চ সার্জারি, মুখোশ অত্যাবশ্যক, এটা মনে রাখতে হবে!


অবশেষে জয়গান, অশ্লীল শব্দচয়ন দূর হোক...  আর সবকিছুতে, যাই হোক?


আসরের রুলের বাইরে ছিলো, তাই এটা ডিজার্ভ করে...  কিন্তু বাংলা কবিতার জগৎ যে সীমাবদ্ধ এখনো সেই কট্টরপন্থী রুলে...
আমি কবি পণ্ডিত না, পণ্ডিত পছন্দও করি না, কিন্তু সম্মান করি...


অশ্লীলতার অভিযোগ শুনলেই "ক্যাম্পে"র কথা মনে পড়ে...আসলে কবিতা যে যে দৃষ্টি দিয়ে দেখে...


সবশেষে যেহেতু এটা অভিযুক্ত ছিলো, তাই অপরাধী, তাই ক্ষমাপ্রার্থী...



"পণ্ডিত কানা অহংকারে
মাতবর কানা চোগলখোরে।
সাধু কানা অন বিচারে
আন্দাজে এক খুঁটি গেড়ে,
চেনে না সীমানা কার।।
এসব দেখি কানার হাটবাজার...
______লালন সাঁই "